রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল অনুষ্ঠিত
01:03am, 14th Feb, 2024


stack photo

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২৪ এর ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বাংলা বিভাগের পুরুষ দল 'অর্জুন' ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের নারী দল 'রেড এলার্ট' এবং রানার্সআপ হয়েছে অর্থনীতি বিভাগের নারী ও পুরুষ দল।


সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪টা ৩০ মিনিটে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-৩ এর উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে এই চ্যাম্পিয়নশিপের চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্ আজম এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার প্রফেসর ড. ফিরোজ আহমদ।


এ সময় বিজয়ী দল, রানার্সআপ দলসহ অন্যান্য দলের খেলোয়াড়দের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্ আজম। রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া আয়োজক কমিটির আয়োজনে চার দিনব্যাপী চলা এই টুর্নামেন্টে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের মোট ৪০টি দল অংশগ্রহণ করে।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ্ আজম বলেন, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ইতোমধ্যেই পঠন-পাঠনের নিজস্বতা নির্মাণ করতে সমর্থ হয়েছে, যেটি আমাদের শিক্ষা-সংস্কৃতির অংশ হিসেবে সকলের কাছেই গ্রহণযোগ্য ও প্রশংসিত হয়েছে। রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রচলিত শিক্ষাদান পদ্ধতির সঙ্গে বাঙালি সংস্কৃতির বিভিন্ন অনুসঙ্গকে সংযুক্ত করে নতুন শিক্ষার পরিবেশ তৈরির পথে অগ্রসর হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে বলতে পারি, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার সঙ্গে সংস্কৃতির মেলবন্ধন ঘটাতে সচেষ্ট রয়েছে। শিক্ষার্থীরা নিজেদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে গৌরবের সঙ্গে ধারণ করে, মানবিকবোধে শাণিত হয়ে অগ্রসর হবে, এটা আমাদের প্রত্যাশা।



তিনি বলেন, সুস্থ সমাজ নির্মাণের ক্ষেত্রে ক্রীড়ার ভূমিকা স্বীকৃত। যুব সমাজকে সামাজিক অবক্ষয়ের হাত থেকে মুক্ত রাখতে হলে তাদেরকে ক্রীড়া ও সংস্কৃতিচর্চার সঙ্গে সংযুক্ত রাখতে হবে। শিক্ষার্থীদের শরীর মনের পরিপূর্ণ বিকাশে খেলাধুলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। প্রতিযোগিতায় শিক্ষার্থীগণ যে ক্রীড়া নৈপুণ্য দেখিয়েছেন তাতে আমরা খুব আশাবাদী হয়েছি, সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় যেভাবে অবদান রেখে চলছে তেমনিভাবে ক্রিড়াঙ্গনেও অবদান রাখতে পারবে।


উপাচার্য চ্যাম্পিয়নস ট্রফি অর্জন করায় বাংলা বিভাগের 'অর্জুন' ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের 'রেড এলার্ট' টিমকে অভিনন্দন জানান। একই সঙ্গে রানার্সআপসহ অন্যান্য দলের খেলোয়াড়রা আগামীতে ভালো করবেন মর্মে শুভকামনা জানান। তিনি বলেন, তোমরা প্রত্যেকেই ভালো করেছো, আগামীতে আরও ভালো করবে। এমন সুন্দর আয়োজন করায় উপাচার্য রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া আয়োজন কমিটির আহ্বায়ক বিজন কুমারসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।


অনুষ্ঠানে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো. ফখরুল ইসলামসহ বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যানবৃন্দ, শিক্ষক, ক্রীড়ামোদী শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।